দিরাইয়ে চাঞ্চল্যকর ‘ত্রিপল মার্ডার’ মামলায় আ.লীগ নেতা রিমান্ডে

রিপোর্টার নামঃ
  • শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১
  • ৫০৩ বার পড়া হয়েছে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে চাঞ্চল্যকর ত্রিপল মার্ডার অন্যতম আসামি, সুনামগঞ্জ-২ আসনের এমপি ড. জয়াসেন গুপ্তার বিশ্বস্তসহচর, ভাটিপাড়া জলমহাল সংক্রান্তে সংঘর্ষে নিহত রুহেদ হত্যা মামলার প্রধান আসামি দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায়কে শুক্রবার রাত ১০টায় সিলেট থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৯।

শনিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল আদালতে তুললে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আজিজ মিয়া ৫দিনের রিমান্ড আবেদন করলে ২দিনের রিমান্ডমঞ্জুর করে বিচারক। রিমান্ড শেষে জেল হাজাতে পাঠানোর নির্দেশনা দেন আদালত।
গ্রেফতারের খবর ছড়িয়ে পড়লে তাঁর ফাঁসির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করে ভুক্তভোগীরা।

শনিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সম্মুখে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা প্রদীপ রায়সহ হত্যার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তুমলক শাস্তির দাবী জানায়।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নিহত রুহেদের ভাই সুয়েদ মিয়া,মা আজেদা বেগম, ভাবি রাজ মনি ও ছোট বোন সাজনা বেগম।

উল্লেখ্য, গত সোমবার (১৮ অক্টোবর) উপজেলার উদির হাওরে মেঘনা বারোঘর জলমহালে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায় রুহেল (মেম্বার) ও আওয়ামীলীগ নেতা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কাজল নূর গ্রুপের লোকজনদের মধ্যে সংঘর্ষে কাজল নুরের চাচাতো ভাই রুহেদ মিয়া ঘটনাস্থলেই মারা যান।

ঘটনার পাঁচদিন পর নিহতের বড় ভাই সুহেদ মিয়া বাদী হয়ে দিরাই থানায় মামলায় প্রদীপ রায়কে প্রধান করে ৭৩ জনকে আসামি করে মামলা রুজু করা হয়।
এছাড়াও ২০১৭ সালের ১৭ জানুয়ারি উপজেলার জারলিয়া জলমহালের দখল নিয়ে যুবলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে তিনজন মারা যাওয়ার ঘটনায় প্রদীপ রায়কে প্রধান আসামি এবং দিরাই পৌরসভার সাবেক মেয়র মোশাররফ মিয়া ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদারসহ ৩৯ জনকে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা রুজু হয়েছিল। ঐ মামলায় প্রদীপ রায় জামিনে ছিলেন।

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © 2021 Anushondhan News
Developed by Host for Domain