‘৩০০ টাকা মজুরি দে, নইলে বুকে গুলি দে’চা শ্রমিক

রিপোর্টার নামঃ
  • রবিবার, ২১ আগস্ট, ২০২২
  • ৭২ বার পড়া হয়েছে

অনুসন্ধান নিউজ :: ১২০ টাকা থেকে মজুরি বৃদ্ধি করে ৩০০ টাকা করার দাবিতে চা শ্রমিকরা গত ৮ আগস্ট থেকে কর্মসূচি চালিয়ে আসছেন। এরপর ১৩ আগস্ট থেকে তারা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে রয়েছেন। আজ ধর্মঘটের নবমদিন।

এখন শ্রমিকরা নিজেদের দাবি আদায়ে মরিয়া হয়ে ওঠছেন। তারা মহাসড়ক অবরোধ করছেন। আবার নিজেদের গায়ে ‘চরম বার্তা’ সম্বলিত স্লোগানও লিখছেন।

আজ রোববার শ্রমিকদের গায়ে ‘৩০০ টাকা মজুরি দে, নইলে বুকে গুলি দে’ স্লোগান লিখা দেখা গেছে।

সিলেট শহরতলির লাক্কাতুরা এলাকায় চা শ্রমিকদের বিক্ষোভে এমন স্লোগান ছিল শ্রমিকদের মুখেও।

এ ছাড়া ‘বাঁচার মতো বাঁচতে চাই, ৩০০ টাকা মজুরি চাই’ ‘জাগো রে জাগো, চা শ্রমিক জাগো’ ‘২০-৩০ মানি না, ৩০০ না হলে বুঝি না’ প্রভৃতি স্লোগানও দেন চা শ্রমিকরা। বেশ কিছু যুবকের গায়ে এমন স্লোগান লিখাও ছিল।

একপর্যায়ে শ্রমিকরা বিমানবন্দর সড়ক অবরোধ করেন। এতে সড়কের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ। পরে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরীর আশ্বাসে বেলা দেড়টার দিকে শ্রমিকরা অবরোধ থেকে সরে যান।

এদিকে, শান্তিপ্রিয় বলে পরিচিত চা শ্রমিকদের আন্দোলনে ‘চরমপন্থামূলক’ স্লোগান কিভাবে জায়গা পেল, তা নিয়ে খোদ চা শ্রমিক নেতাদের মধ্যেই বিস্ময় কাজ করছে। সুশৃঙ্খল আন্দোলনকে বিশৃঙ্খল করে সংঘাত বাঁধাতে বাইরে থেকে কেউ ইন্ধন দিচ্ছে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন একাধিক শ্রমিক নেতা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে শ্রীমঙ্গলের বালিশিরা ভ্যালির এক শ্রমিক নেতা সিলেটভিউকে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যেখানে আশ্বাস দিয়েছেন, সেখানে আন্দোলন স্থগিত করাটাই ছিল সবচেয়ে উত্তম। কিন্তু আমরা স্থগিত করতে চাইলেও কোনো একটি পক্ষ তা চাইছে না। এখানে বাইরের ইন্ধন ঢুকে গেল কিনা, তা নিয়ে আমরা এখন শঙ্কায় পড়ে গেছি।’

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © 2021 Anushondhan News
Developed by Host for Domain