শিরোনাম :
জালালাবাদ অন্ধকল্যাণ সমিতির সংবর্ধনায় মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বাংলাদেশ বৌদ্ধ যুব পরিষদ সিলেটের পারিবারিক মিলনমেলা ও বার্ষিক বনভোজন সম্পন্ন গোয়াইনঘাটে হত্যা মামলার আসামিসহ আটজনকে আটক করেছে থানা পুলিশ সিলেটে মন্ত্রীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উত্তেজনা, চেয়ার ভাঙচুর সিলেটে সময়ের আলোর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত মহান স্বাধীনতার মাস উপলক্ষে সুরমা সমাজ কল্যাণ সমিতির আলোচনা সভা ৪র্থ স্বাধীনতা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট ইউনিয়নের আহবানে সভায় যোগদান করলেন সুলতান গুচ্ছগ্রাম বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্কুলে ড্রেস পেল শতাধিক শিক্ষার্থী অপসংস্কৃতি থেকে সনাতনী সমাজকে বেরিয়ে আসতে হবে: এডভোকেট মৃত্যুঞ্জয় ধর ভোলা

রিপোর্টার নামঃ
  • বুধবার, ২৪ আগস্ট, ২০২২
  • ৬৯ বার পড়া হয়েছে

অনুসন্ধান নিউজ :: দৈনিক ৩০০ টাকা মজুরির দাবিতে চা শ্রমিকদের চলমান আন্দোলনে এবার যুক্ত হয়েছে তাদেরই স্কুল পড়ুয়া সন্তানরা। বুধবার (২৪ আগস্ট) সকালে মালনীছড়া চা বাগানে শ্রমিকের সন্তানরা আন্দোলনে যুক্ত হয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে দেখা গেছে।

এ সময় তারা ‘৩০০ টাকা মজুরি দাও নাইলে বিষ দাও’, ‘বাচার মত বাচতে চাই ৩০০ টাকা মজুরি চাই’, এমন বেশ কিছু শ্লোগান দেয়।

এদিকে সিলেটে ১৬তম দিনের মতো চা শ্রমিকদের আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে। বুধবার সকাল থেকে সিলেট ভ্যালির সকল চা বাগানে দৈনিক ৩০০ টাকা মজুরির দাবিতে কর্মবিরতি পালন করছেন শ্রমিকরা।
অন্যান্য দিনেরমতো আজও কাজে যোগ দেননি তারা।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার চা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতাদের সাথে বৈঠক শেষে কর্মবিরতি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন পঞ্চায়েত প্রতিনিধিরা। তাদের সাথে তিনশ টাকা মজুরির দাবিতে একমত পোষণ করেন ইউনিয়নের নেতারাও।

প্রসঙ্গত, ৩০০ টাকা মজুরি আদায়ে ৯ থেকে ১১ আগস্ট পর্যন্ত দৈনিক দুই ঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করেন শ্রমিকরা। পরে ১১ আগস্ট সন্ধ্যায় শ্রীমঙ্গলে অবস্থিত বিভাগীয় শ্রম দপ্তরে কর্মকর্তারা বৈঠকে বসলেও আলোচনা ফলপ্রসূ হয়নি।

পরে ১৩ আগস্ট থেকে টানা ধর্মঘটের ডাক দেয় শ্রমিকরা। এরমধ্যে দফায় দফায় সভা ও বৈঠক হয়েছে। অবশেষে ১২০ টাকা মজুরিতে শ্রমিকরা কাজে যোগদান করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। কিন্তু এ সিদ্ধান্তও না মেনে শ্রমিকরা ধর্মঘট অব্যাহত রেখেছেন।

 

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © 2021 Anushondhan News
Developed by Host for Domain